কক্সবাজারে জাল খতিয়ানসহ আটক ১, ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড

এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :

📷 ফাইল ছবি

নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী সারাদেশে চলছে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম। এরই আলোকে চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা এলাকায়ও চলছে এই ভোটার কার্যক্রম।

এতে উপজেলা ভূমি কার্যালয়ে খতিয়ান সত্যায়িত করতে এসে জাল খতিয়ানসহ মো: শোয়াইব (৩৩) নামে এক যুবক আটক করা হয়। পরে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিশ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়।

রোববার (২৯ মে) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত উজ জামান কার্যালয়ে এ অর্থদন্ড প্রদান করেন।

উপজেলা ভূমি কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের ন্যায় রোববার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নতুন ভোটারেরা নির্বাচন কমিশন (ইসি) চাহিদা মতে বিপুল সংখ্যক লোকজন খতিয়ানে সত্যায়িত করতে আসেন। এসময় খতিয়ান যাচাই-বাচাইকালে এক ব্যক্তির জাল খতিয়ান সনাক্ত করা হয়। পরে ওই ব্যক্তির স্বীকারোক্তি মতে জাল খতিয়ান তৈরি কাজে জড়িত ব্যক্তিকে ভূমি কার্যালয়ে ডেকে আনা হয়।

তার ভাষ্যমতে জাল খতিয়ান তৈরি কাজে জড়িত থাকার অপরাধের দায়ে মো: শোয়াইব (৩৩) নামে এক যুবক আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সংশ্লিষ্ট ধারায় তাকে বিশ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: রাহাত উজ জামান বলেন, বিগত পাঁচদিন ধরে ভূমি অফিসে হালনাগাদ ভোটারদের খতিয়ানে কাছ চলছে। ভোটার হওয়ার জন্য যে ভাবে লোকজন খতিয়ানের কাগজপত্র নিয়ে ভূমি অফিসে এসেছে তা যাচাই-বাচাই করে দেখা হচ্ছে। ভোটারদের কাগজপত্র ঠিক থাকলে তা সত্যায়িত করে দেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, রোববার বিকেলে খতিয়ান যাচাই-বাচাইকালে একটি জাল খতিয়ান সনাক্ত করা হয়। যে ব্যক্তি ওই খতিয়ান নিয়ে সত্যায়িত করতে আসে তার ভাষ্যমতে জাল খতিয়ান তৈরি কাজে জড়িত ব্যক্তিকে আটক করে পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে সংশ্লিষ্ট ধারায় বিশ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয়। পরবর্তীতে যারা এসমস্ত জাল খতিয়ান নিয়ে ধরা পড়বে তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।