বান্দরবানের ৮ শ’ বছরের পুরনো বুদ্ধমূর্তি রাজগুরু বৌদ্ধমন্দিরে

বান্দরবান প্রতিনিধি •


বান্দরবান শহরের রাজগুরু বৌদ্ধমন্দিরে সংরক্ষিত বুদ্ধ মূর্তিটি প্রায় ৮শ’ বছরের পুরনো বলে গবেষকরা তথ্য দিয়েছেন।

১২ থেকে ১৫ শতকে সেন রাজার আমলে এটি মিয়ানমারের আরাকান থেকে বান্দরবানে আনা হয়েছিল। বাংলাদেশ প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ দীর্ঘ দু’ মাস বুদ্ধমূর্তিটি নিয়ে গবেষণার পর এ তথ্য জানিয়েছে। বান্দরবানের এই পুরনো বুদ্ধমূর্তিকে প্রত্নতাত্ত্বিক সম্পদ ঘোষণা করতে পারে প্রত্নতাত্ত্বিক বিভাগ।

এদিকে এ ঘোষণার পর বান্দরবান জেলা পরিষদ ও বৌদ্ধ মন্দির পরিচালনা কমিটি ঐতিহাসিক এই বুদ্ধমূর্তিটি নতুন করে সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে। বাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ বুদ্ধমূর্তিটি সম্পর্কে গবেষণার তথ্য প্রকাশ করার পর গত বুধবার জেলা পরিষদ কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের এই তথ্য জানিয়েছেন। এ সময় মন্দির পরিচালনা কমিটির সা. সম্পাদক আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কে এস মং মারমাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

গত ১২ অক্টোবর প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের একটি প্রতিনিধি দল বান্দরবান সফর করে রাজগুরু বুদ্ধ মন্দিরে সংরক্ষিত পুরনো বুদ্ধমূর্তিটির বয়স নির্ধারণে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে। এ সময় মন্দিরের তিনটি পুরনো বুদ্ধমূর্তি পরীক্ষা করেন তারা। নবম বোমাং রাজা সানাঞোর সময়ে বুদ্ধমূর্তিটি মিয়ানমারের আরাকান থেকে বান্দরবানে নিয়ে আসা হয়েছিল। পরে এটি বান্দরবানের রাজগুরু বৌদ্ধমন্দিরে সংরক্ষণ করা হয়।