টেকনাফের যাত্রীবাহি কার থেকে ইয়াবা উদ্ধার: ৬ কারবারী আটক

গিয়াস উদ্দিন ভুলু, কক্সবাজার জার্নাল •


টেকনাফ থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি মিনিকার গাড়ীতে অভিনব কায়দায় লুকিয়ে রাখা ১৯ হাজার ইয়াবার চালানসহ ৬ মাদক কারবারীকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ।

১৫ আগস্ট (সোমবার) সকাল ১০ টার দিকে কলাতলী সংলগ্ন মেরিন ড্রাইভ সড়কে জেলায় কর্মরত ডিবি পুলিশের একটি চৌকষ দল এ অভিযানটি পরিচালনা করেন।

আটককৃতরা হচ্ছে, টেকনাফ সদর ইউনিয়ন মৌলভীপাড়া এলাকার লোকমান হাকিমের পুত্র রফিক (২৪), নাজিরপাড়া জাফর আলম’র পুত্র সৈয়দ নুর (২৬), উত্তর নাজিরপাড়ার আব্দু শুকুর’র পুত্র সৈয়দ উল্লাহ (২৮) মৌলভীপাড়া আলী আহমদ’র পুত্র সিদ্দিক (৪০), কক্সবাজার চকরিয়া উপজেলার পূর্ব নিজপাড়ার মৃত শাহ আলম’র পুত্র ওসমান (৩০),
টেকনাফ বাহারছড়া ইউপি নোয়াখালীপাড়া এলাকার ছৈয়দুর রহমান’র পুত্র ইব্রাহিম (২০)।

অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখায় কর্মরত ওসি সাইফুল আলম জানান, গোপন সংবাদের তথ্য অনুযায়ী টেকনাফ থেকে আসা ঢাকা মেট্রো ক-১১-৩১৮৯ নাম্বারের মিনি কার তল্লাশী করা হয়।

এসময় ৪ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রথমে তারা ইয়াবা পাচারের কথা অস্বীকার করে। গাড়িটি কলাতলী সংলগ্ন স্থানীয় ওয়ার্কসপে নিয়ে মেকানিকের সহায়তায় গাড়ীর বিভিন্ন অংশ খুলে তল্লাশী করে এক পর্যায়ে গাড়ির নীচে একটি বক্সে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা কস্টেপ দিয়ে মুড়ানো ইয়াবার পোটলা গুলো উদ্ধার করার পর গননা করে ১৯ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়।

তিনি আরও জানান, এরপর আটকদের ব্যাপকভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবা রিসিভ করার জন্য অপেক্ষায় থাকা চক্রের অন্য দুই মাদক ব্যবসায়ী ওসমান ও ইব্রাহিম (২০) কে কক্সবাজার জেলা কারাগার গেইট থেকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় আরও কয়েকজন পলাতক রয়েছে। তাদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ধৃত মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করার পর বিজ্ঞ আদালতে প্রেরন করা হবে বলেও জানান তিনি।