সাড়ে ৯ বছর পর মিয়ানমার কারাগার থেকে ফেরত এলো ৪ বাংলাদেশী

গিয়াস উদ্দিন ভুলু,কক্সবাজার জার্নাল

মিয়ানমারে বিজিবি ও বিজিপির মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত বেঠক শেষে ৯ বছর ৬ মাস কারাভোগকারী ৪জন বাংলাদেশীকে স্বদেশে ফেরত আনা হয়েছে। এরা ৪ জন সীমান্ত উপজেলা টেকনাফ সদর ইউনিয়নের।

জানা যায়, বুধবার সকাল ১১টায় মিয়ানমারের অভ্যন্তরে মন্ডু ১নং এন্ট্রি/এক্সিট পয়েন্টে বাংলাদেশ ১১জন সদস্যবিশিষ্ট বিজিবি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার এবং মিয়ানমার ৮ জন সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন মন্ডু ডিস্ট্রিক পুলিশের ডেপুটি ডাইরেক্টর থিন লিন।

প্রায় ঘন্টাব্যাপী সৌহার্দ্যপূর্ণ আলোচনায় উভয়পক্ষ দু’দেশে মাদক ও চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশরোধ,সীমান্তে সৃষ্ট ঘটনা আলোচনার ভিত্তিতে সমাধানসহ স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

বৈঠক শেষে মিয়ানমার কারাগারে সাড়ে ৯ বছর সাজা ভোগকারীরা হচ্ছে টেকনাফ সদর ইউনিয়ন নাজির পাড়া এলাকার মৃত হোসেন আহমদের পুত্র মোঃ জসিম (৪৪),আব্দুল গফুরের পুত্র মোঃ ইলিয়াছ (২৯), একই ইউনিয়ন মৌলভী পাড়ার সুলতান আহমদের পুত্র সাব্বির আহাম্মদ (৩৬) ও আবুল কালামের পুত্র আজগর আলী (৩৯) কে আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদেরকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার।

নাজির পাড়ার দু’জন অবৈধ পথে মালয়েশিয়া যাওয়ার সময় মিয়ানমার আইন-শৃংখলা বাহিনীর হাতে আটক হয়। এরপর তাদের দুই জনকে মিয়ানমার আদালত ২১ বছর করে সাজা প্রদান করে।
অপরদিকে মিয়ানমারে ইয়াবা আনতে গিয়ে আটক হওয়া মৌলভী পাড়ার দুই অপরাধীকে ২৫ বছর করে সাজা প্রদান করে মিয়ানমার আদালত। অবশেষে সাড়ে ৯ বছর কারাভোগ শেষ হওয়ার পর অবশিষ্ট সাজা মিয়ানমার সরকার মওকুপ করে দেন।

বিজিবি প্রতিনিধি দল স্বদেশ ফেরত আসা ৪জন বাংলাদেশীকে পরিবারের নিকট হস্তান্তর করার জন্য টেকনাফ মডেল থানায় সোর্পদ করা হয়েছে।